ক্রিকেট ইতিহাসে আজকের দিনঃ ১ জুলাই

Naim
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • শেয়ার করুন

  • Facebook
আজকের দিনে সাধারণ ঘটনা

টেস্টে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড়-
টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ টেস্টে প্লেয়ার হিসেবে অভিষেকের তালিকায় বেশ ভালো ভাবে পাকপোক্ত পাকিস্তানের নাম। মাত্র ১৪ বছর বয়সেও টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেকের রেকর্ড রয়েছে পাকিস্তানের৷ তবে ক্রিকেটের একাল সেকাল মিলিয়ে এই তালিকা যেনো পরিপূর্ন পাকিস্তানের পদচারণায়৷ তেমনি ১৯২৪ সালের আজকের এই দিনে সেকালের সবচেয়ে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে ক্রিকেটের এই কুলীন ফরম্যাটে মাত্র খালিদ হাসানের। মাত্র ১৬ বছর ৩৫২ দিন বয়সে পাকিস্তানের টেস্ট জার্সিতে সেকালের সব চেয়ে তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক হয় খালিদ হাসানের।

কেভন জেমস এর ৪ বলে ৪ উইকেট এবং ব্যাট হাতে সেঞ্চুরী-
১৯৯৬ সালে ভারত ৩ ম্যাচ টেস্ট এবং ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার জন্যে পাড়ি দেয় ইংল্যান্ডের ডেরায়। সিরিজের আগে কাউন্টি দল হাম্পাশায়র এর সাথে এক প্রস্তুতি ম্যাচে মুখোমুখি হয় ভারত। সেই ম্যাচে ভারতের ইনিংসের ৪ বলে ৪ উইকেট এবং ব্যাট বাতে ১০৩ রান করে একাই গুটিয়ে দেন কেভন জেমস। ক্রিকেট ইতিহাসে এমন স্বর্ণলি ইতিহাসের সৃষ্টি ১৯৯৬ সালের আজকের এই দিনেই।

▪প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ১ ম্যাচে ১৭ উইকেট-
প্রথম শ্রনীর ক্রিকেটে রয়েছে অনেক রেকর্ডের সম্ভার, রয়েছে অনেক বিরল রেকর্ডের অংশবিশেষ। তেমনি ১৯৯৩ সালের আজকের দিনে ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছিলো টিচ ফ্রীম্যানের প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে এক ম্যাচে ১৭ উইকেটের রেকর্ড৷ ১ম ইনিংসে ৮ উইকেট এবং ২য় ইনিংসে নিয়েছিলেন ৯ উইকেট৷ টিচ ফ্রীম্যান একমাত্র ক্রিকেটার যার ঝুঁলিতে রয়েছে প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ২ সিজনে ৩০০+ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড৷

▪ ট্রেন্ট ব্রিজের সেই টেস্ট ম্যাচ-
আলোচনা সাপেক্ষ ইংল্যান্ড কে বলা ক্রিক্রটের জনক। বলা যায় ক্রিকেটের কুলীন ফরম্যাট টেস্টে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ড। ১৯৩৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে টানা ৭ ম্যাচে হেরে তখন ইংল্যান্ড টিম ম্যানেজমেন্টে নিয়েছিলেন এক অদ্ভুত সিদ্ধান্ত। ১৯৩৩ সালের আজকের এইদিনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেই টেস্ট ম্যাচে একসাথে অভিষেক হয়েছিলো ৪ তরুণ ক্রিকেটারের। এরা হলেন মার্ক ল্যাথওয়েল, মার্ক ইলিয়ট, মার্টিন ম্যাকগেজ, গ্রাহাম থর্প। এমনকি সেই ম্যাচর একাদশে ফেরানো হয়েছিলো ৩ বছর পর নাসের হোসাইন কে এবং মাত্র ৩ টি করে টেস্ট খেলেছিলেন এন্ডি ক্যাডিক এবং পিটার সাচ। সবচেয়ে বড় কথা ইংল্যান্ড সেই ম্যাচ টি ড্র করতে পেরেছিলো। এমন ঘটনা ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছে ১৯৩৩ সালের আজকের এইদিনে।

আজকের দিনে বাংলাদেশের ম্যাচ
১-৭-২০১৮ বাংলাদেশ বনাম আয়ারল্যান্ড (টি২০)
ফলাফল- ৬ উইকেটে হার

আজকের দিনে যারা জন্মগ্রহণ করেছিলেন-
১৮৪৯- জন সেলবি (ইংল্যান্ড)
১৯২৫- ফ্রাঙ্ক লউওসন (ইংল্যান্ড)
১৯৩৮- চেষ্টার ওয়াটসন (ওয়েস্ট-ইন্ডিজ)
১৯৬৩- সাজিদ আলী (পাকিস্তান)
১৯৬৯- গ্রাহাম লয়েদ (ইংল্যান্ড)

আজকের দিনে সেঞ্চুরি-
১৯০৭- লেন ব্রাউন্ড (ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা)
১৯৩০- পারছি চার্পম্যান (ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া)
১৯৩৫- ব্রুস মিটচেল (দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইংল্যান্ড)
১৯৬৬- টম গ্র‍্যাভেনে (ইংল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
১৯৬৯- জিওফ বয়কট (ইংল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
১৯৯৪- মাইক আথারটন (ইংল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড)
২০০৬- সনাথ জয়াসুরিয়া (শ্রীলঙ্কা বনাম ইংল্যান্ড)
২০০৬- মার্কাস ট্রেসকোকথিক (ইংল্যান্ড বনাম শ্রীলঙ্কা)
২০০৬- উপুল থারাঙ্গা (শ্রীলঙ্কা বনাম ইংল্যান্ড)
২০০৮- জেমস মার্শাল (নিউজিল্যান্ড বনাম আয়ারল্যান্ড)
২০০৮- ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড বনাম আয়ারল্যান্ড)
২০০৮- আব্দুল সামাদ (কানাডা বনাম বারমুডা)
২০১১- মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা বনাম ইংল্যান্ড)
২০১২- আজাহার আলী (পাকিস্তান বনাম শ্রীলঙ্কা)
২০১৯- ক্রেইগ অরভিন (জিম্বাবুয়ে বনাম আয়ারল্যান্ড)
২০১৯- আভিস্কা ফার্নান্দো (শ্রীলঙ্কা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
২০১৯- নিকোলাস পুরাণ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম শ্রীলঙ্কা)
২০১৯- এন্ড্রিউ বালবিরিনি (আয়ারল্যান্ড বনাম জিম্বাবুয়ে)

▪ আজকের দিনে ৫ উইকেট-
১৯০৭- বার্ট ভগলার (দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইইংল্যান্ড)
১৯৩০- ক্ল্যারি গ্রিমেট (অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ড)
১৯৩৫- জেন বালাস্কাস (দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইংল্যান্ড)
১৯৫৪- বব এপলইয়ার্ড (ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান)
১৯৮৫- বব হল্যান্ড (অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ড)
১৯৮৭- জেন্নি ওয়েনস (অস্ট্রেলিয়া প্রমীলা বনাম আয়ারল্যান্ড প্রমীলা)
২০০০- কোর্টনি ওয়ালশ (ওয়েস্ট-ইন্ডিজ বনাম ইংল্যান্ড)
২০০২- শেন বন্ড (নিউজিল্যান্ড বনাম ওয়েস্ট-ইন্ডিজ)
২০০৪- চামিন্দা ভাস (শ্রীলঙ্কা বনাম অস্ট্রেলিয়া)
২০০৬- হারভজন সিং (ভারত বনাম ওয়েস্ট-ইন্ডিজ)
২০০৭- ফিডেল এডওয়ার্ডস (ওয়েস্ট-ইন্ডিজ বনাম ইংল্যান্ড)
২০১৩- জেনি গান (ইংল্যান্ড প্রমীল বনাম পাকিস্তান প্রমীলা)

 

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের আরো খবর