তৌহিদ-জাকিরে ম্লান হলো সাকিবের ঝড়ো ইনিংস

ডেস্ক নিউজ
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২৩
  • শেয়ার করুন

  • Facebook

বিপিএলের দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে চার ছয়ের ফুলঝুরি দেখলো মিরপুর। পৌষের কনকনে ঠান্ডায় উত্তাপ ছড়ালো সাকিব-তোহিদ হৃদয় ও জাকিররা। যার শুরুটা করেছিলেন ফরচুন বরিশালের সাকিব আল হাসান। মাঠের বাহিরে খেলায় উত্তাপ ছড়ানো সাকিব মাঠেও খেলেছেন সমানতালে। তবে সাকিবের সব উত্তাপ ম্লান হয়েছে দ্বিতীয় ইনিংসে একের পর এক ফিল্ডিং মিসে। তার ঝড়ো ইনিংসে বড় সংগ্রহ পাওয়ার পরও তার দল হেরেছে সিলেট স্টাইকার্সের কাছে।

মিরপুর শেরে বাংলা ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে বিপিএলে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং নেয় মিরাজের বরিশাল। সাকিবের অধিনায়কত্ব করার কথা থাকলেও ম্যাচ বাই ম্যাচে ক্যাপ্টেন নির্বাচন করার কথা জানায় বরিশাল ম্যানেজম্যান্ট। ওপেনিং এ বরিশালকে শুভ সূচনা এনে দেন এনামুল বিজয় ও সিলভা। পাওয়া প্লে তে ৫৪ রান করা ওপেনিং জুটি ভাঙে ৬৭ রানে এনামুলের বিদায়ে। ৭.২ ওভারে ২১ বলে ২৯ রান করে মাশরাফির বলে অ্যাকারম্যান এর হাতে ক্যাচ দেন বিজয়। পরের ওভারে ব্যক্তিগত ৩৫ রান করে সিলভা ফিরে গেলে ব্যাটিংয়ে আসেন সাকিব।

দ্রুত ২ উইকেট হারিয়ে রান রেটের গতি কমতে থাকলে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হন সাকিব। কখনও জায়গায় দাঁড়িয়ে, কখনও অফ সাইডে সরে গিয়ে মিড উইকেট, স্কয়ার লেগে বাউন্ডারি আদায় করে নেন সাকিব। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাত্র ২৬ বলেই তুলে নেন টি-২০ ক্যারিয়ারের ২৭ তম অর্ধশতক। অন্য প্রান্তের ব্যাটাররা কেউ থিতু হতে পারেননি সাকিবের সাথে। ইফতেখারের ১৩, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৯ রানে বিদায় নিলে সাকিবের সাথে দীর্ঘ সময়ের সঙ্গী হতে পারেননি কেউ। ৩২ বলে ৭ চার ও ৪ ছয়ে ৬৭ রানে থামে সাকিবের ইনিংস। শেষ দিকে করিম জানাতের ১৭ রানের ক্যামিওতে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ১৯৪ রানের বড় সংগ্রহ পায় ফরচুন বরিশাল।

বড় টার্গেটে খেলতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই অ্যাকরম্যানের বিদায়ে মনে হচ্ছিলো বড় পরীক্ষাই অপেক্ষা করছে মুশফিকের দলের জন্য। তবে নাজমুল শান্ত ও তৌহিদ হৃদয়ের শতরানের পার্টনারশিপে যেনো মামুলি টার্গেটে পরিণত হয় বরিশালের করা রান। অ্যাকারম্যানের দ্রুত বিদায়ের পরও স্কোরবোর্ডে দ্রুত রান তুলেছে এই দুই ব্যাটার। শতরানের পার্টনারশিপের পর দুজনের ভুল বুঝাবুঝিতে রান আউটে কাটা পড়েন শান্ত। তার উইলো থেকে আসে ৪৮ রান।

শান্তর বিদায়ের পর জাকির হাসানকে নিয়ে আবারো পার্টনারশিপ গড়েন তৌহিদ হৃদয়। তুলে নেন বিপিএলের প্রথম অর্ধশতক। তবে এরপর আর বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় নি হৃদয়ের ইনিংস। ব্যক্তিগত ৫৫ রান ও দলীয় ১৩৬ রানে বিদায় নেন তিনি। জাকির হাসান ১৮ বলে ৪৩ রানের ক্যামিও খেলে ফিরে গেলেও সিলেটের জয়টা তখন ছিলো সময়ের ব্যাপার। যা নিরাপদেই পাড়ি দেন মুশফিকুর রহিম ও থিসারা পেরেরা। এ দুজন অপরাজিত থেকে এক ওভার বাকি থাকতেই ৬ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সিলেট স্টাইকার্স । বিপিএলের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান তাড়া করে এবারের আসরে টানা দ্বিতীয় জয় পেলো সিলেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ফরচুন বরিশাল ১৯৪/৭(২০ ওভার)
সাকিব ৬৭, সিলভা ৩৫, এনামুল ২৯
মাশরাফি নেন ৩ উইকেট, ১ টি করে উইকেট নেন ইমাদ ওয়াসিম, রাজা ও পেরেরা।

সিলেট স্টাইকার্স ১৯৬/৪(১৯ ওভার)
তৌহিদ ৫৫, শান্ত ৪৮, জাকির ৪৩
সিলভা ও জানাত ১ টি করে উইকেট নেন।

ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন তৌহিদ হৃদয়।

 

, , , , , ,

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের আরো খবর