নাটকীয় জয়ে সিরিজে ফিরল ইংল্যান্ড

Arfin Rupok
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৮৬ ভিউ
  • শেয়ার করুন

মরগানের সাহসীকতায় বল হাতে জ্বলে উঠছে আর্চার-ওকস। স্যাম কারেনের দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে ২৪ রানের জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা।

এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিশ্চিত করতে অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল ২৩২ রান। জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ওয়ার্নারের বিদায়। বেশিক্ষণ স্হায়ী হয়নি স্টয়নিসের ইনিংস। তৃতীয় উইকেটে দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। অধিনায়ক ফিঞ্চের সাথে লাবুশানের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় ২ উইকেটে ১৪৩ রান। এরপর যেটা ঘটেছিল সেটা যে অবিশ্বাস্য।

ক্রিকেট গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা। ১৪৩ রানে ৩য় উইকেট পতনের পর মূহুর্তেই বদলে গিয়েছে ম্যাচের দৃশ্য। এখানে নায়ক আর্চার-ওকস। অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ তখন ১৪৭/৬ উইকেট। ততোক্ষণে সাজঘরে ফিরেছেন ফিঞ্চ, মার্শ, লাবুশানে, ম্যাক্সওয়েলের মতো ব্যাটসম্যানরা।

এরপর বাকি সময়টা ক্যারিতে ভরসা খুঁজতে থাকেন অস্ট্রেলিয়ান সমর্থকরা। কিন্তু স্যাম কারেন তাদের সেই আশা পূরণ হতে দিলেননা। শেষ ৪ উইকেটের ৩ উইকেট পুড়েছেন নিজের পকেটে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্যারি যখন রশীদের শিকার হয়েছিলেন ইংল্যান্ড তখন মেতে উঠেছিল জয়োল্লাসে। ২৩২ রানের টার্গেট! ১৪৩/২ থেকে ২০৭/১০। প্রথম ম্যাচ হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ২৪ রানের জয়ে ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ছিল ইংলিশ দলপতি মরগান। জ্যাম্পার ৩ উইকেটের সাথে স্টার্কের ২ উইকেট এবং হ্যাজলউডদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৪৩ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে বসা ইংল্যান্ড ঘুরে দাঁড়িয়ছিলো টম কারেন এবং রশীদের ব্যাটে। অধিনায়ক মরগান দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪২ রানের ইনিংস উপহার দেন, এছাড়াও রুট ৩৯, কারেন ৩৭ এবং রশীদ ৩৫ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছিলো।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড:
ইংল্যান্ড- ২৩১/৯(৫০ ওভার)
মরগান ৪২, রুট ৩৯, টম কারেন ৩৭, রশীদ ৩৫*
জ্যাম্পা ৩৬/৩, স্টার্ক ৩৮/২

অস্ট্রেলিয়া- ২০৭/১০(৪৮/৪ ওভার)
ফিঞ্চ ৭৩, লাবুশানে ৪৮, ক্যারি ৩৬
ওকস ৩২/৩, আর্চার ৩৪/৩, স্যাম কারেন ৩৫/৩

ফলাফল: ইংল্যান্ড ২৪ রানে জয়ী।

 

,

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের আরো খবর