মাঠে ফিরছে দর্শক, ১২ ঘন্টায় শেষ সব টিকিট!

  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৫২ ভিউ
  • শেয়ার করুন



গত ১১ মার্চ ঢাকার মিরপুরে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের মধ্যকার সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে গ্যালারি ভর্তি দর্শক দেখা গিয়েছিলো।

এরপর করোনার ফলে থমকে গিয়েছিলো গোটা বিশ্ব, থেমে গিয়েছিলো ক্রীড়াঙ্গন। এর তিনমাস পর ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু হয়েছিলো, একে একে বেশ কয়েকটি দেশ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নেমেছে। কিন্তু কোনো ম্যাচেই দর্শক দেখা যায়নি, তবে কিছু ম্যাচে গ্যালারির সিটে দর্শকদের রেপ্লিকা দেখা গিয়েছিলো!

অন্যদিকে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ৮৬,১৭৪ জন দর্শকের সামনে হয়েছিলো নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ। সেই ম্যাচের দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ মাস পর নারীদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দর্শকদের আনাগোনা দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেটভক্তরা।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আর মাত্র ১১ দিন পর গত মার্চের পর আবারো ক্রিকেট মাঠে দর্শকের দেখা মিলবে।
২৬ সেপ্টেম্বর ব্রিসবেনের অ্যালান বোর্ডার ফিল্ডের গ্যালারিতে প্রতিবেশী দুই দেশ অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড মেয়েদের দলের খেলায় মাঠে দেখা যাবে সোয়া দুই হাজার দর্শককে।

গতকাল সকালে সিরিজের তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের টিকিট অনলাইনে বিক্রির ঘোষনা দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। এর প্রায় ১২ ঘন্টার মধ্যেই সন্ধ্যায় সিএ জানায় ম্যাচ তিনটির সবগুলো টিকিট সোল্ড!

ব্রিসবেনের মাঠটিতে মোট দর্শক ধারণক্ষমতা সাড়ে চার হাজার। ধারণক্ষমতার অর্ধেক সোয়া দুই হাজার টিকিট বিক্রি করা হয়েছে।

করোনার সংকটময় পরিস্থিতিতে ক্রিকেট মাঠে দর্শক ফেরাতে বেশ কাঠখড় পোড়াতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে। খেলা দেখার সুযোগ মিললেও দর্শকদের জন্য বেশ কয়েকটি শর্ত বেঁধে দিয়েছে সিএ। করোনা সংক্রমণের ঝুকির কথা মাথায় রেখেই এসব শর্ত দেয়া হয়েছে।

সকল টিকিট অনলাইনে বিক্রির পাশাপাশি দর্শকদের জন্য নির্দিষ্ট জোন ভাগ করা হয়েছে। ছয়টি জোনের প্রত্যেকটিতে নির্দিষ্ট পরিমাণ দর্শক থাকবেন। এক জোনের দর্শক অন্য জোনে যেতে পারবে না।

তাদের ওয়েবসাইটে দেয়া বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, নিজ দলের সমর্থনে গলা ফাটাতে পারবেন না দর্শকরা। খেলা দেখার সময় জোরে চিৎকার করা যাবে না, প্রাণ খুলে নিজ দলের জন্য গানও গাওয়া নিষেধ। কারণ, দর্শকরা যদি জোরে চিৎকার করে বা গান গায় তাহলে তাদের মুখ থেকে থুতু বেশি দুরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়ে যায়, যার মাধ্যমে করোনা সহজেই ছড়িয়ে পড়তে পারে। কুইন্সল্যান্ডের রাজ্য সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আরো অনেকগুলো নিয়ম মানতে অনুরোধ করা হয়েছে দর্শকদের।

এছাড়াও মাঠে খেলা দেখাকালীন সময়ে কোনো দর্শককে প্রয়োজন পড়লে তাকে ট্র্যাক করার জন্য বিশেষ এক ডিভাইস তৈরী করেছে তারা। আলাদা আলাদাভাবে প্রত্যেককে একটা করে ডিভাইস খেলা চলাকালীন নিজের সঙ্গে রাখার জন্য দেয়া হবে।

টি-টোয়েন্টির পর তিনটি ওয়ানডে ম্যাচও খেলবে দু’দল। সে ম্যাচ গুলোতেও দর্শকদের দেখা যাবে মাঠে, ওয়ানডে সিরিজেরও বেশীরভাগ টিকিট ইতোমধ্যেই সোল্ড হয়ে গিয়েছে। ট্রান্স-তাসমান সিরিজের সবগুলো ম্যাচই কুইন্সল্যান্ড রাজ্যের ব্রিসবেন অ্যালান বোর্ডার ফিল্ডে হবে।

সিরিজ শিডিউল
 

, , , ,

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের আরো খবর