Cricketkhor

"ডাল ভাতের সাথে ক্রিকেট খাই,
টাইগারদের জন্য গলা ফাটাই"

শামীমের ব্যাটে বাংলাদেশের জয়

Cricketkhor

Cricketkhor

দিনের শুরুটা প্রিটোরিয়াসের দখলে থাকলেও শেষটা হয়েছে শামীম ঝড়েই! এর মাঝে কখনো আয়ারল্যান্ড আবার কখনোবা বাংলাদেশ এগিয়ে গিয়েছে জয়ের লড়াইয়ে। টানটান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে শেষ ওভারে শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল।

চট্টলায় সকালটি ছিলো বাংলাদেশের পক্ষেই! টস জিতে সফরকারীদের ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানানোর মধ্য দিয়ে শুরু হয় পাঁচ ম্যাচের দ্বিতীয় আনঅফিশিয়াল ওয়ানডে ম্যাচটি। টস ভাগ্য সহায়ক হলেও বাংলাদেশী বোলাররা পুরো সকালটি করতে পারেনি নিজেদের। চট্টলায় উত্তাল ঢেউ না থাকলেও আইরিশ ওপেনাররা বাইজ গজে ঢেউ তুলেছিলো ঠিকই। যতক্ষনে বাংলাদেশ সাফল্য পেয়েছিলো ততক্ষণে আয়ারল্যান্ড উলভস দলের ওপেনিং জুটি দাঁড়িয়েছিলো ঠিক ৮৮ রান!

দলীয় ৮৮ রানের মাথায় বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন সুমন খান। এরপর আবারো লম্বা জুটি গড়ে তুলে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান ওপেনার প্রিটোরিয়াস এবং ওয়ান ডাউনে নামা ডোহেনি। দলীয় ১৭২ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানো আয়ারল্যান্ড চাপে পড়ে রাকিবুলের বোলিংয়ে। এরপর অধিনায়কের কামিওতে ৫০ ওভার শেষে ২৬৩ রানের সংগ্রহ পায় আয়ারল্যান্ড উলভস দল। বাংলাদেশের পক্ষে দুইটি করে উইকেট শিকার করেন সুমন খান এবং রাকিবুল হাসান। আয়ারল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯০ রান আসে প্রেটোরিয়াসের ব্যাটে।

আয়ারল্যান্ড উলভসের দেওয়া ২৬৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামা বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছিল উড়ন্ত! অধিনায়ক সাইফ এবং তরুণ তামিমের ব্যাটে ওপেনিং জুটিতে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৪৪ রান! এরপর জয়-সাইফের ধীরগতির ব্যাটিংয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। সেই চাপ আরো বেড়ে যায় সাইফের বিদায়ে।

এরপর জয়- ইয়াসিরের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। যদিও হতাশ করেছেন ইয়াসির; ফিরেছেন ব্যক্তিগত ৩১ রানে। এরপর আবারো চাপে পড়ে বাংলাদেশ। কিন্তু এক প্রান্ত আগলে রেখে দারুণ ব্যাটিং উপহার দিতে থাকেন অ-১৯ দলের চ্যাম্পিয়ন ফিনিশার শামীম পাটোয়ারী। জয়ের ৬৬ রানের সাথে শামীমের অপরাজিত ৩৯ বলে ৫৩ রানের ইনিংসের উপর ভর করে ২ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পায় স্বাগতিক বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। সেই সাথে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো সাইফের দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড:

আয়ারল্যান্ড উলভস ২৬৩/৭ (ওভার ৫০)
প্রিটোরিয়াস ৯০, ম্যাককুলাম ৪১
রাকিবুল ২-৩৯

বাংলাদেশ ইমার্জিং ২৬৪/৬ (ওভার ৪৯.৪)
মাহমুদুল হাসান ৬৬, শামীম ৫৩*, সাইফ ৩৬
হোয়াইট ২-৪৫

ফলাফল: বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ৪ উইকেটে জয়ী।