Cricketkhor

"ডাল ভাতের সাথে ক্রিকেট খাই,
টাইগারদের জন্য গলা ফাটাই"

হাসানুর-জাওয়াদের শতকে বাংলাদেশের বড় সংগ্রহ

Sayem

Sayem

আসামে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথমদিনে দুর্দান্ত খেলেছে বাংলাদেশের ব্যাটাররা। প্রথম দিন শেষে বড় সংগ্রহ গড়েছে সফরকারীরা।

গুয়াহাটির আমিনগাঁও ক্রিকেট মাঠে আজ টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। উভয় দলই তিনটি করে পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে। বাংলাদেশের সাদ ইসলাম রাজিন, তাফসির আরাফাত তাসিব ও আজিজুল হাকিম তামিমের পরিবর্তে মুবিন আহমেদ দিশান, কালাম সিদ্দিকী অ্যালেন ও ফারহান শাহরিয়ার খেলেন।

ওপেনিংয়ে নেমে দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ। বিনা উইকেটে ১২০ করে ফেলে দুই ওপেনার জাওয়াদ আবরার ও মুবিন আহমেদ দিশান। লাঞ্চের ঠিক আগের ওভারে টানা দুই উইকেট হারিয়ে ১২১-২ এ বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।
লাঞ্চের কিছুক্ষণ পর ক্যাপ্টেন দেবাশীষ ফিরলে ম্যাচের হাল ধরেন জাওয়াদ ও কালাম। ৪৮তম ওভারে চতুর্থ ছক্কা হাঁকিয়ে ১৫৪ বলে শতক তুলে নেন জাওয়াদ আবরার। সফরে বাংলাদেশের এবং সিরিজের প্রথম শতক এটি।
চতুর্থ উইকেটে কালাম সিদ্দিকী অ্যালেনের সাথে ৬৩ রান যোগ করে সাজঘরে ফেরেন আবরার। ২৩৪ মিনিটে ১৮ চার ও ৫ ছক্কায় আবরার সাজান ২০৩ বলে ১৩৯ রানের ইনিংস।

এরপর আর কোনো উইকেট হারায়নি বাংলাদেশ।
প্রথম ম্যাচের মতো এদিনও বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন হাসানুর। বড়সড় জুটিতে দু’জনই অর্ধশত তুলে নিলে এরপর বোলারদের উপর ছড়াও হন হাসানুর। ৫৩ বলে ফিফটি করা হাসানুর দিনের শেষ ওভারে ২৪ রান নিয়ে শতক পূর্ণ করেন ৭৮ বলে! ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচের দ্বিতীয় শতক করা হাসানুর দিনশেষে অপরাজিত থাকেন ১০৪ রানে।
২৪০-৪ এ চা বিরতিতে যাওয়া বাংলাদেশ শেষ সেশনে যোগ করেছে ১৩২ রান। হাসানুর জামান ও কালাম সিদ্দিকীর অপরাজিত ১৬৩* রানের জুটিতে দিন শেষ করে বাংলাদেশ। দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৭২।
স্বাগতিকদের হয়ে দুই বোলার চারটি উইকেট নিয়েছেন।

প্রথম ম্যাচে দুই ইনিংস মিলিয়ে ১৬০ পার করতে পারেনি স্বাগতিক আসাম অনূর্ধ্ব-১৬ দল। দ্বিতীয় দিনে অবশ্যই দ্রুত ইনিংস ঘোষণা করবে বাংলাদেশ। ইনিংস ব্যবধানে জয়ের লক্ষ্য থাকবে তাদের। সাথে সিরিজে স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশের সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
বাংলাদেশ অ১৬: ৩৭২-৪(৯৪)
জাওয়াদ আবরার ১৩৯(২০৩) ১৮ চার ও ৫ ছক্কা
মুবিন আহমেদ দিশান ২২(১০৩) ৩ চার
আব্দুল্লাহ ০(১)
দেবাশীষ সরকার ১০(২৭) ২ চার
কালাম সিদ্দিকী অ্যালেন ৬৬(১৫৭)* ১১ চার
হাসানুর জামান ১০৪(৭৯)* ১৩ চার ও ৬ ছক্কা।
অতিরিক্ত ৩১
একলব্য শর্মা ১৯-৫-৫২-২, দ্যুতিময় নাথ ৩১-৫-১৩৬-২ |