Cricketkhor

"ডাল ভাতের সাথে ক্রিকেট খাই,
টাইগারদের জন্য গলা ফাটাই"

একটা সময় বাংলাদেশের মানুষজন ক্রিকেট খেলা হলে নিজের দেশের চাইতে অন্যান্য দেশকে সমর্থন দিতো বেশী৷ এটা নিতান্ত বাংলাদেশী হিসেবে আমাদের খারাপ লাগতো। সেজন্য ২০১৩ সালের ১১ই জানুয়ারি একেএম কাউসার প্রতিষ্ঠা করেন ফেসবুক গ্রুপ ক্রিকেটখোর। যাদের মূল ধ্যানজ্ঞান ছিলো মাঠে কিংবা মাঠের বাইরে শুধুমাত্র বাংলাদেশকেই সমর্থন করা এবং বাংলাদেশী ক্রিকেটের চর্চা করা। সেই থেকে শুরু হওয়া ক্রিকেট সংগ্রাম এখনো চলছে, ফেসবুকের পাশাপাশি ওয়েবসাইটেও বাংলাদেশ ক্রিকেটের জয়গান ছড়িয়ে দেয়ার কাজ শুরু হয়েছে।

অনলাইনে ক্রিকেট বিশ্লেষণ ভিত্তিক লেখালেখির ধারা চালু করে আজ অব্দি শত শত লেখক তৈরীর কারিগর এই ক্রিকেটখোর গ্রুপ, সাথে বিভিন্ন অফলাইন কার্যক্রমেও ছিলো সমান পদচারণা। ২০১৪ সালে বিশ্ব ক্রিকেটের ছড়িটা তিনটা নির্দিষ্ট দেশের হাতে চলে যাওয়ার উপক্রমের বিরুদ্ধে ক্রিকেটখোর আন্দোলনে দাড়িয়েছিলো ঐতিহাসিক শাহবাগ চত্বরে, এছাড়া বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বিরুদ্ধে বিসিবির লঘুপাপে গুরুদণ্ড দেয়ার বিরুদ্ধেও সেবছর আমরা ক্রিকেটখোর শাহবাগে মানববন্ধন করেছিলাম!

ক্রিকেটখোর

এছাড়া দেশব্যাপী ক্রিকেটখোর প্রিমিয়ার লীগ নামে আমাদের আয়োজিত টুর্নামেন্টে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছেলেরা খেলার সুযোগ পায়, প্রায় প্রতিটি জেলাতেই অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে তরুণ সমাজকে মাদক ও জুয়া থেকে দুরে রাখার সামাজিক প্রচারণা চালানো হয়। ক্রিকেটখোর কমিউনিটি প্রোগ্রাম নামে জেলাভিত্তিক কমিটি আছে, প্রায় ৩০ টির মত জেলায় ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠিত আছে যেথায় কমিউনিটি মেম্বাররা বিভিন্ন ক্রিকেট সম্পর্কীয় ইভেন্ট আয়োজন করে থাকে। পড়াশুনার বাইরের ফ্রি সময়ে তরুণরা ক্রিকেট চর্চায় নিজেদের মান উন্নয়নের সুযোগ পায় এতে। 

এর বাইরে ক্রিকেটখোর সবসময় ব্লাড ডোনেশন, শীতবস্ত্র বিতরণ, দরিদ্র শিশুদেরকে ঈদের পোশাক উপহার দেয়া, অস্বচ্ছল ক্রিকেটারদেরকে সাধ্যমত সাহায্য করা সহ বিভিন্ন সামাজিক দায়িত্ব পালনে সামনের সারিতেই থেকেছে৷