বেটা ভার্সন | ২৬শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সাইফের সেঞ্চুরির দিনে তুষারের ‘এক’ রানের আক্ষেপ!

প্রতিবেদক

সোমবার, ২২ মার্চ , ২০২১ ৬:২০

পাক্কা একবছর পর মাঠে ফিরেছে ঘরোয়া ক্রিকেট। গত ডিপিএল শুরতেই স্থগিত হবার পর আজ ১২ মাস পর আবারো দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরলো। বহু জল্পনাকল্পনা শেষে আজ শুরু হলো ২২তম ন্যাশনাল ক্রিকেট লিগ। প্রথমদিনে হয়েছে চারটি ম্যাচ। প্রথমদিন শেষে কেউ এগিয়েছে-তো কেউ ব্যাকফুটে। বিস্তারিতঃ

ম্যাচ-১ঃ
শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সিলেট। সাবলীলভাবে ব্যাটিং শুরু করলেও দলীয় ২৫ রানে প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। দ্বিতীয় উইকেটে রবিউলের সাথে ১১০রানের জুটি গড়েন ইমরুল কায়েস। ৯০ রানে ইমরুল আউট হন। এরপর একপ্রান্ত আগলে রেখে তুষার ইমরান যথাক্রমে সোহানের সাথে ৬১, জিয়ার সাথে ৪৫ ও নাহিদুলের সাথে ৩৭ রানের জুটি গড়েন। দূর্ভাগ্যবশত রাহীর ডিরেক্ট থ্রো’তে ৯৯ রানে আউট হন তুষার! এরপর নাহিদুল-মইনুল ধরে খেলতে থাকলেও ২১ বল মোকাবিলা করে মইনুল আউট হলে দিনের খেলার সমাপ্তি ঘটে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
খুলনা 🆚 সিলেট, খুলনা স্টেডিয়াম।
টস: সিলেট, ফিল্ডিং।

খুলনা- ৩০৮-৭(৮৩.৩)
ইমরান উজ জামান- ১৫, রবিউল ইসলাম রবি- ৩৭, ইমরুল কায়েস- ৯০, তুষার ইমরান- ৯৯, নুরুল হাসান- ২২, জিয়াউর রহমান- ১০, নাহিদুল ইসলাম- ২৪*

আবু জায়েদ রাহী ১৯-২-৭৩-২, এবাদত হোসাইন ১৮.২-৫-৪৬-২, খালেদ আহমেদ- ২১-৬-৬৬-১, এনামুল জুনিয়র ১৫-১-৭০-১

ম্যাচ-২ঃ
টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ঢাকার অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরী। দুই অপেনার ডাক আউট হলে মাহিদুল অংকনের সাথে সাইফ হাসান ম্যাচের হাল ধরেন। জুটিতে ৭৯ রান যোগ করে আউট হন অংকন। এরপর ক্রিজে এসে তাইবুর ও শুভাগত কেউই বেশীক্ষণ টিকেনি। তবে একপ্রান্তে ঠায় দাঁড়িয়ে ছিলেন সাইফ হাসান। অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরীকে নিয়ে এগুতে থাকেন তিনি। সদ্য শেষ হওয়া আয়ারল্যান্ডের সাথে সিরিজের মতোই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ১১ চার,৫ ছয়ে সাইফ হাসান তুলে নেন টুর্নামেন্টের প্রথম শতক। এরপর ফিফটির দেখা পান নাদিফ। দুজনের গড়েন ১৩৭ রানের বড় জুটি। ৮১ তম ওভারে আলাউদ্দিন বাবুর জোড়া আঘাতে দুই সেট ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরেন। এরপর নাজমুল অপু আউট হলেও আরাফাত সানি জুনিয়র ও সুমন ইসলাম নিরাপদে দিন শেষ করেন। আলাউদ্দিন বাবু নিয়েছেন ৪ উইকেট।

সেঞ্চুরির পথে সাইফ হাসান

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড:
ঢাকা 🆚 রংপুর, বিকেএসপি-৩ মাঠ।
টস: ঢাকা, ব্যাটিং।

ঢাকা: ২৯৭-৮(৯০)
মাহিদুল অংকন- ৪৭, সাইফ হাসান- ১২৭, তাইবুর পারভেজ- ১০, শুভাগত হোম- ১০, নাদিফ চৌধুরী- ৬৯, আরাফাত সানি জুনিয়র- ৮*

মুকিদুল মুগ্ধ ১২-১-৩৬-১, আলাউদ্দিন বাবু ১৩-২-২৫-৪, মাহমুদুল হাসান ১৮-৩-৬০-২, সোহরাওয়ার্দী শুভ ২৬-২-৮০-১

ম্যাচ-৩ঃ
টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নামেন বরিশালের অধিনায়ক ফজলে মাহমুদ রাব্বী। টপ অর্ডারে এক আশরাফুল বাদে কেউ ভালো করতে পারেনি। ফেরার লড়াইয়ে থাকা আশরাফুল আউট হন ৪৮ রানে। আউট হবার আগে সৈকত আলীর সঙ্গে ৫৮ রান যোগ করেন অ্যাশ। সৈকত ৩৬ রানে আউট হনএরপর সোহাগ গাজী ও আবু সায়েম আক্রমনাত্মক খেলতে থাকেন, সপ্তম উইকেট জুটিতে দুজনে যোগ করেন ৬৭ রান। ১৬০ স্ট্রাইকরেটে ৪৫ করে আউট হন গাজী, এর কিছুক্ষণ পর ৪৬ রানে আউট হন আবু সায়েম। এরপর আর কেউ দাঁড়াতে না পারলে ২৪১ রানে অল আউট হয় বরিশাল। কোনো ব্যাটসম্যানই পঞ্চাশ রান পার করতে পারেনি। আবু হায়দার ও রকিবুল হাসান ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন।
এরপর ব্যাটিংয়ে এসে ষষ্ঠ ওভারে আনিসুল ক্যাচ দিলে প্রথম উইকেট হারায় ঢাকা মেট্রো।এরপর শামসুর-জাহিদ শান্তশিষ্টভাবে দিনের খেলা শেষ করেন। ২১২ রানে পিছিয়ে প্রথম দিন শেষ করেছেন মার্শাল আইয়ুবের ঢাকা মেট্রো। 
সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
বরিশাল 🆚 ঢাকা মেট্রো, বরিশাল স্টেডিয়াম।
টসঃ বরিশাল, ব্যাটিং।

বরিশাল: ২৪১-১০(৭৬)
মইনুল ইসলাম- ৪, ফজলে রাব্বী- ১০,  আশরাফুল- ৪৮, সালমান- ১৬,  সৈকত আলী- ৩৬, নুরুজ্জামান- ১৫, সোহাগ গাজী- ৪৫, আবু সায়েম- ৪৬, কামরুল রাব্বী- ১০*

আবু হায়দার ১৪-৪-৩৪-৩, রকিবুল হাসান ১৬-৩-৭৬-৩, আরাফাত সানি ২৪-১১-৫৯-২, শহিদুল ইসলাম ১০-২-২৪-১, আমিনুল বিপ্লব ৮-০-৩৭-১

ঢাকা মেট্রো: ২৯-১(১২)
আনিসুল ইমন- ১০, জাহিদুজ্জামান- ৭*, শামসুর শুভ- ১২*

মনির হোসাইন ২-০-৯-১

ম্যাচ-৪ঃ
শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় চট্টগ্রামের মুমিনুল হক। টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান পারভেজ ইমন, পিনাক ঘোষ, মাহমুদুল জয়, মুমিনুল হতাশ করেছেন। এরপর ম্যাচের হাল ধরেন দুই উদীয়মান ইয়াসির আলী ও শাহাদাত দীপু। দু’জনে গড়েন ৮৮ রানের জুটি। ৬৩ করে আউট হন ইয়াসির। এরপর ইরফান শুক্কুর ডাক মেরে সাজঘরে ফেরেন। তবে এরপর মেহেদিকে নিয়ে ১১৩ রান যোগ করেন সপ্তম উইকেটে। দিনের শেষাংশে ৫৫ করে মেহেদি আউট হন। এরপরে ইরফানকে নিয়ে দিন পার করেন দীপু। ধৈর্যের চূড়ান্ত পরীক্ষা দেয়া শাহাদাত দীপু ৩৮২ মিনিট ক্রিজে থেকে ২২৪ বলে ৮৮ রান করে অপরাজিত আছেন। ফরহাদ রেজা এবং আসাদুজ্জামান পায়েল দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
চট্টগ্রাম 🆚 রাজশাহী, রাজশাহী স্টেডিয়াম।
টস: চট্টগ্রাম, ব্যাটিং।

চট্টগ্রাম: ২৫৬-৭(৯০)
পারভেজ ইমন- ৬, পিনাক ঘোষ-১৫, মাহমুদুল জয়- ১১, মুমিনুল হক- ৬, ইয়াসির আলী- ৬৩, শাহাদাত দীপু- ৮৮, মেহেদি হাসান- ৫৫

ফরহাদ রেজা ২৩-৭-৩৬-২, আসাদুজ্জামান পায়েল ১৮-১-৫৫-২, শফিকুল ইসলাম ১৮-৩-৪৯-১, তাইজুল ইসলাম ২২-৫-৬৩-১, তৌহিদ হৃদয় ৯-১-৪৩-১

প্রথম রাউন্ডে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হবে আগামীকাল সকাল ৯.৩০ মিনিটে।

৮ দল নিয়ে শুরু হওয়া এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে ৬ রাউন্ডে। চারদিনের প্রতিটি ম্যাচে একে অপরের মুখোমুখি হবে।

, , , ,

মতামত জানান :