বেটা ভার্সন | ২৬শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দীপু-মেহেদিতে চট্টগ্রামের জয়

প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ , ২০২১ ১১:৫০

দুই উদীয়মান শাহাদাত দীপু এবং মেহেদি হাসানের পারফর্ম্যান্সে ভর করে রাজশাহীর বিপক্ষে ৮৮ রানের জয় দিয়ে এনসিএল শুরু করলো চট্টগ্রাম।

প্রথম রাউন্ডে টায়ার-২ এর ম্যাচে শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় চট্টগ্রামের অধিনায়ক মুমিনুল হক। টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান পারভেজ ইমন, পিনাক ঘোষ, মাহমুদুল জয়, মুমিনুল হতাশ করেছেন। এরপর ম্যাচের হাল ধরেন দুই উদীয়মান ইয়াসির আলী ও শাহাদাত দীপু। দু’জনে গড়েন ৮৮ রানের জুটি। ৬৩ করে আউট হন ইয়াসির। এরপর ইরফান শুক্কুর ডাক মেরে সাজঘরে ফেরেন। তবে এরপর মেহেদিকে নিয়ে ১১৩ রান যোগ করেন সপ্তম উইকেটে। দিনের শেষাংশে ৫৫ করে মেহেদি আউট হন। এরপরে ইরফানকে নিয়ে দিন পার করেন দীপু। ধৈর্যের চূড়ান্ত পরীক্ষা দেয়া শাহাদাত দীপু ৩৮২ মিনিট ক্রিজে থেকে ২২৪ বলে ৮৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। ফরহাদ রেজা এবং আসাদুজ্জামান পায়েল দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন।

আগেরদিন ২৫৬-৭ এ খেলা শেষ করা চট্টগ্রাম পরের দিনে অল আউট হয় দ্রুতই। এর আগে দিনের শুরুতেই শাহাদাত দীপু তুলে নেন টুর্নামেন্টে তার প্রথম শতরান। ২৮৭ রানে অল আউট হওয়া চট্টগ্রাম বোলিংয়ে নেমে ঝলক দেখায়! শুরু থেকে নোমান-মেহেদি মিলে চাপে রাখে রাজশাহীকে, যার ফলে মাত্র ১৫২ রানে সবকটি উইকেট হারায় তারা। প্রথম ইনিংসে ১৩৫ রানের লিড পায় চট্টলার ক্রিকেটাররা। দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে দ্রুতই দুই অপেনারকে হারায় চট্টগ্রাম, দুজনেই ডাক মেরে সাজঘরে ফিরেছেন। এরপর মুমিনুল-জয় মিলে প্রতিরোধের চেষ্টা করলেও মিমি আউট হন দ্রুতই। এরপর আরো দুইটি উইকেট হারালে দিনের খেলার সমাপ্তি ঘটে। দিনশেষে তাদের স্কোর ছিলো ৪৩-৫, ১৭৮ রানের লিড নিয়ে দিন শেষ করেছিলো চট্টগ্রাম।

আগেরদিন প্রথম ইনিংসে লিড পাওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে চট্টগ্রাম ৫ উইকেট হারিয়ে ৪৩ রানে শেষ হয় খেলা। এদিনে মাহমুদুল জয়ের ৩৯ রানের পর ইরফান শুক্কুরের ৬৫ রানের সুবাদে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৪৭ করতে সক্ষম হয় চট্টগ্রাম। রাজশাহীর উইকেটরক্ষক প্রিতম কুমার প্রথম ইনিংসে ১ ডিসমিসালের পর দ্বিতীয় ইনিংসে একাই করেছেন ৬টি ডিসমিসাল! ২৮৩ রানের লক্ষ্যে আক্রমনাত্মক শুরু করে রাজশাহী। দুই অপেনার তানজিদ ২৮ ও জহুরুল অমি ২৩ রানে ফিরলে ম্যাচের হাল ধরেন জুনায়েদ সিদ্দিকী, তুলে নেন ফিফটি। অপরপ্রান্তে ফরহাদ ব্যর্থ হলে তৌহিদ হৃদয় করেন ২৩। ডাক মেরে সাজঘরে ফিরেন সাব্বির রুম্মন। জুনায়েদ-ফরহাদ রেজার জুটিতে ১৪৭-৫ রানে দিন শেষ করে রাজশাহী। চট্টগ্রামের উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুর প্রথম ইনিংসে ৪টির পর দ্বিতীয় ইনিংসে আরো ২টি ডিসমিসাল করেছেন। শেষদিনে জয়ের জন্য ১৩৬ রানে লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নামবে তারা।
শেষদিনে এসে ফরহাদ রেজা ২৫ রানে আউট হওয়ার পর নিয়মিত বিরতিতে বাকী উইকেটগুলো হারায় রাজশাহী। ৬৯তম ওভারে এসে অল আউট হয় রাজশাহী।
মেহেদি হাসান এদিনে নিয়েছেন ৩ উইকেট।

ম্যাচসেরা মেহেদি হাসান রানা।

ম্যাচে মেহেদি হাসান ৫৫ রানের পাশাপাশি ৭টি উইকেট নেন, যার সুবাদে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন তিনি।

দ্বিতীয় রাউন্ডে কক্সবাজারে ঢাকা মেট্রোর মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম, ২৯ তারিখ শুরু হবে ম্যাচটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
চট্টগ্রাম(প্রথম ইনিংস): ২৮৭-১০।
শাহাদাত-১০৮, ইয়াসির-৬৩, মেহেদি-৫৫;ফরহাদ-৪৪/৪।
রাজশাহী: ১৫২-১০।
ফরহাদ-২৭*, সাব্বির-২৪;নোমান-৪৭/৪, মেহেদি-২২/৩।
চট্টগ্রাম(দ্বিতীয় ইনিংস): ১৪৭-১০।
ইরফান-৬৫, মাহমুদুল-৩৯;ফরহাদ-৩৭/৩, তাইজুল-৪৮/৩, তৌহিদ-১৯/৩।
রাজশাহী:১৯৪-৯।
জুনায়েদ-৬৮*;ইরফান-৪০/৩, মেহেদি-৩৫/৪।
ফলাফলঃ চট্টগ্রাম ৮৮ রানে বিজয়ী।

, , , ,

মতামত জানান :