যেভাবে প্রস্তুত হচ্ছেন সাকিব

  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • শেয়ার করুন

  • Facebook

সাকিব আল হাসানের ক্রিকেটে হাতেখড়ি হয়েছিলো বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপিতে)। ক্রিকেটার হয়ে ওঠার আতুড়ঘরে নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছেন সাকিব।
গত ১ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে দেশে ফেরেন তিনি। বিশ্রাম নিয়ে কোভিড-১৯ পরিক্ষা করিয়েছেন, রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরপরই নিজের পুরনো ডেরায় ফিরে গিয়েছেন তিনি। সেখানে বর্তমানে নীরবে-নিভৃতে প্রস্তুত হচ্ছেন তিনি।
কেমন চলছে সেখানে তার অনুশীলন, কিভাবে প্রস্তুত করছেন নিজেকে পুরনো রূপে; দেশের শীর্ষস্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী সেসব জানানোর চেষ্টা করছিঃ

সাকিব দেশে ফেরার আগ থেকেই নিশ্চিত ছিল যে কঠোর গোপনীয়তায় দুই গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিম ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের অধীনে থেকে মূল প্রস্তুতি গ্রহণ করবেন তিনি। আগে থেকেই বিশ্বসেরার ফেরার প্রস্তুতির চক এঁকে রেখেছিলেন দুজনে। সেভাবেই চলছে এখন সাকিবের অনুশীলন।

করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পরপরই ৪ তারিখ রাতে বিকেএসপিতে যান সাকিব। সেখানে কোয়ারেন্টাইন কাটানোর পাশাপাশি প্রস্তুতি শুরু করেছেন তিনি।

দীর্ঘদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকার ফলে স্বাভাবিকভাবেই ফিটনেস ট্রেনিংয়ের মধ্য দিয়েই প্রস্তুতি শুরু করার কথা সাকিবের। প্রথম এক সপ্তাহ মূলত ফিটনেস নিয়েই কাজ করছেন তিনি। সাবেক দেশসেরা দৌড়বিদ ও বিকেএসপির কোচ আব্দুল্লা হেল কাফির তত্ত্বাবধানে চলছে ফিটনেস অনুশীলন। পাশাপাশি হাতের শক্তি বাড়ানো ও ক্ষিপ্রতা ফিরে পেতে তরুণ বক্সিং কোচ আরিফুল করিমের অধীনে কাজ করছেন তিনি।

সকাল ৭ থেকে শুরু হয় সাকিবের প্রস্তুতি। শুরুতে কাফির সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ ফিটনেসের নানা দিক নিয়ে কাজ করেন। এরপর স্কিল নিয়ে মোহাম্মদ সালাউদ্দীনের সাথে কাজ করেন সাকিব। ব্যাটিং নিয়ে মূল কাজ করেন ফাহিম স্যারের সঙ্গে, পাশাপাশি সালাউদ্দিনও সঙ্গ দেন তাকে। আর সারাক্ষণই একজন ফিজিও থাকেন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে।

কাফির সঙ্গে বিকেএসপির অ্যাথলেটিকস ট্র‍্যাকে হালকা কিছু অনুশীলনের পর দৌড়ে নিজেকে ফিট রাখছেন সাকিব। দুপুরের দিকে বিকেএসপির ইনডোরে ব্যাটিংটা ঝালিয়ে নেন দুই কোচ ফাহিম স্যার ও সালাউদ্দিনের অধীনে। এছাড়াও ইতোমধ্যেই বিকেএসপির ১ নম্বর মাঠের মূল উইকেটেও ব্যাটিং প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন তিনি। উক্ত মাঠের একপাশে ফিল্ডিং অনুশীলনও শুরু করেছেন সাকিব।

মধুমতী গেস্টহাউজে তার কোচিং স্ট্যাফদের সঙ্গেই মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন সাকিব।
মধুমতী গেস্টহাউজেই এখন ঠাঁই হয়েছে তার।

প্রথম সপ্তাহ ফিটনেসের উপর বেশী প্রাধান্য দিয়ে অনুশীলন করেছেন সাকিব। দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে ক্রিকেটীয় অনুশীলনকে প্রাধান্য দিবেন তিনি, অর্থ্যাৎ এ সপ্তাহে ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি পুরোদমে ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং এ তিন বিভাগের অনুশীলন শুরু করবেন।

করোনার কারণে স্বাভাবিকভাবেই বন্ধ রয়েছে বিকেএসপি। তারউপর এখন সাকিবের প্রস্তুতির কারণে মিডিয়ার প্রবেশও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
কঠোর এক গোপনীয়তার মধ্য দিয়েই বিকেএসপিতে চলছে সাকিব আল হাসানের অনুশীলন। এই গোপনীয়তার নির্দেশনা আইসিসি থেকেই এসেছে। তারা জানিয়ে দিয়েছে, নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত সাকিব তার ফেরার প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কিছু জানাতে পারবেন না। এমনকি তাকে এই পর্বে যারা সহযোগিতা করবেন তাদেরও কথা বলায় নিষেধাজ্ঞা আছে। ফলে স্পষ্টতই একটা বলয় তৈরি করেই চলছে সাকিবের অনুশীলন।

বিকেএসপির জনসংযোগ কর্মকর্তা বলেছেন, “বাইরের কারো কাছে সাকিব সম্পর্কে কিছু বলা নিষেধ। তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হতে এখনো দেড় মাসের মতো বাকী আছে। এই সময়ে যেন কোনো জটিলতা সৃষ্টি না হয়, সেজন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে।”

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ৩১ অক্টোবর সাকিবের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার ৩দিন পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ দিয়েই বছরখানেক পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন সাকিব আল হাসান।

 

, , , ,

মন্তব্য করুন

এই বিভাগের আরো খবর